Friday, May 24, 2024

গ্রামে লাভজনক ১০ টি ব্যবসার আইডিয়া ২০২২।

গ্রামে কি ব্যবসা করা যায় তা নিয়ে আমাদের অনেকের মাঝেই রয়েছে একটি প্রশ্ন। এমনকি অনেকে আবার এটাও হয়ত খুজছেন টাকা ছাড়া কিভাবে ব্যবসা করা যায়? সেটা নিয়ে না হয় অন্যদিন আলোচনা করব। বন্ধুরা আজকের আলোচনা হলো স্বল্প মূলধন নিয়ে গ্রামে লাভজনক কিছু ব্যবসার ধারনা নিয়ে।

আশা করি সকলে টাইটেল ও থামনেল দেখে বুঝে ফেলেছেন। বর্তমানে ছোট থেকে বড় সকলেই চায় ব্যবসা করতে। কেউ অল্প পূঁজিতে বেশী লাভজনক ব্যবসা করতে চায় আবার কেউ চায় বেশী পুঁজি দিয়ে লাভজনক ব্যবসা করতে। আজকের আর্টিকেলটি তাদের জন্য শেষ পর্যন্ত পড়লে পুরো বিষয়টি বুঝতে পারবেন। বিশেষ করে যারা নতুন ব্যবসা শুরু করতে চায় তাদের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ আর্টিকেল। টাকা বা পুঁজি হলে সকলেই ব্যবসা করতে পারবে কিন্তু কোথায় কি ব্যবসা করলে ভালো লাভবান হওয়া যাবে এটি সবাই বুঝে না। আপনি যদি গ্রামে লাভজনক ব্যবসা করে টাকা আয় করতে চান তাহলে আজকের আর্টিকেল আপনার জন্য। এছাড়াও গ্রামে ঘরে বসেই অনলাইনে আয় করা যাই খুব সহজেই। দেখে নিতে পারেন এই আর্টিকেলটি। আর কথা না বাড়িয়ে চলে যাই মূল কথায়।

ব্যবসার আইডিয়া ২০২২। আর্টিকেলটি খুব সময় নিয়ে ধৈর্য্যসহকারে পড়তে হবে। আর আমি ১০০% গ্যারান্টি দিতে পারি আপনি যদি এই আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে পড়েন । তবে গ্রামে লাভজনক ব্যবসার আইডিয়া নিয়ে আপনার আর কোন প্রশ্ন থাকবে না। আপনি নিজেই বুঝতে পারবেন আপনার এখন কি করা উচিত, কিভাবে সামনে আগানো উচিত।

গ্রামে লাভজনক ১০ টি ব্যবসার আইডিয়া ২০২২!

গ্রামে যে সকল ব্যবসা লাভজনক বা যে সকল ব্যবসা করে আপনি লাভবান হতে পারবেন তার ১০টি তালিকা।

১.মুদি দোকান ব্যবসাঃ

মুদি দোকান ব্যবসা
গ্রামে কি ব্যবসা করা যায় তা নিয়ে আমাদের অনেকের মাঝেই রয়েছে একটি প্রশ্ন। এমনকি অনেকে আবার এটাও হয়ত খুজছেন টাকা ছাড়া কিভাবে ব্যবসা করা যায়? সেটা নিয়ে না হয় অন্যদিন আলোচনা করব। বন্ধুরা আজকের আলোচনা হলো স্বল্প মূলধন নিয়ে গ্রামে লাভজনক কিছু ব্যবসার ধারনা নিয়ে।

গ্রামের ব্যবসার আইডিয়া ২০২২। আপনি যদি গ্রামে বসবাস করে থাকেন তাহলে এই লাভজনক ব্যবসাটি আপনার জন্য। এই ব্যবসাটি আপনি অল্প মূলধনে করতে পারবেন। আর প্রতিটি পরিবারের মুদি সামগ্রী প্রয়োজন। অতএব, একটি ‘মুদি’ দোকান খোলা বাংলাদেশে সবচেয়ে সহজ ব্যবসাগুলির মধ্যে একটি। এই ব্যবসাটি করার জন্য কিছু টেকনিক আছে যেমন : আপনি মূলধন কে ৩ ভাগে ভাগ করবেন ।এক ভাগ কাষ্টমার কে বাকি দিবেন,এক ভাগ দোকানে মাল তুলবেন, এক ভাগ মূলধন হিসেবে জমা রাখবেন। মুদি দোকানে আপনি ২ ভাবে মাল তুলবেন আপনি নিজে গিয়ে মাল সিলেক্ট করে কিনে আনতে পারেন না হয় কোম্পানির লোককে অর্ডার করলে মাল আপনার দোকানে চলে আসবে।

২.ওষুধের দোকানঃ

ওষুধের-দোকান
গ্রামে কি ব্যবসা করা যায় তা নিয়ে আমাদের অনেকের মাঝেই রয়েছে একটি প্রশ্ন। এমনকি অনেকে আবার এটাও হয়ত খুজছেন টাকা ছাড়া কিভাবে ব্যবসা করা যায়? সেটা নিয়ে না হয় অন্যদিন আলোচনা করব। বন্ধুরা আজকের আলোচনা হলো স্বল্প মূলধন নিয়ে গ্রামে লাভজনক কিছু ব্যবসার ধারনা নিয়ে।

গ্রামের ব্যবসার আইডিয়া ২০২২। গ্রামাঞ্চলে কোনো রোগ ব্যাধি হলে সবাই কে অনেক দূর যেতে হয় ওষুধের জন্য। অনেক সময় সঠিক সময়ে ওষুধ না পাওয়ার কারণে মানুষের মৃত্যু পর্যন্ত হয়ে থাকে। তাই আপনি যদি আপনার গ্রামে একটি ওষুধের দোকান খুলতে পারেন তাহলে আপনার ব্যবসার ভবিষৎ নিয়ে ভাবতে হবে না। আর আপনার জন্য এটি লাভজনক ও সেরা ব্যবসার আইডিয়া হতে পারে ।

কিন্তু তার আগে একটা ব্যাপার আপনাদের অবশ্য জেনে রাখতে হবে যে হটাৎ করে আপনি এই ব্যবসা শুরু করতে পারবেন না, তার কারণ আপনি ওষুধের সম্বন্ধে কিছুই জানেন না। তাই আপনি প্রথমে কোনো ওষুধের দোকান কম করে ৬ মাস থেকে ১ বছর কাজ করুন , তার পরে নিজের ব্যবসার কাজ শুরু করুন।

৩.মাশরুমের ব্যবসা ২০২২ঃ

গ্রামে লাভজনক ১০ টি ব্যবসার আইডিয়া ২০২২
গ্রামে কি ব্যবসা করা যায় তা নিয়ে আমাদের অনেকের মাঝেই রয়েছে একটি প্রশ্ন। এমনকি অনেকে আবার এটাও হয়ত খুজছেন টাকা ছাড়া কিভাবে ব্যবসা করা যায়? সেটা নিয়ে না হয় অন্যদিন আলোচনা করব। বন্ধুরা আজকের আলোচনা হলো স্বল্প মূলধন নিয়ে গ্রামে লাভজনক কিছু ব্যবসার ধারনা নিয়ে।

বর্তমানে মাশরুমের ব্যবসা একটি লাভজনক ব্যবসা। আমাদের মধ্যে অনেকেই এই মাশরুমের বিষয়ে জানি। কয়েক বছর ধরে নিরামিষ খাবার হিসেবে মাশরুমের চাহিদা অনেক বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে ৷ তবে শহরে এর চাহিদা সবচেয়ে বেশি ,কিন্তু শহরে সেইভাবে মাশরুম চাষ করার অনুকূল পরিবেশ বা জায়গা কোনোটাই নেই ৷ আর তাই এই মাশরুমের চাষ বেশিরভাগ গ্রামাঞ্চলে হয়ে থাকে ৷

অনেকে হয়তো ভাবছেন যে এটা খুবি কঠিন। সেই চাষবাস এর মতোই মাঠে গিয়ে কাজ করতে হবে, কিন্তু সেটা নয় মাশরুম অন্য পদ্ধতিতে চাষ করা হয় । আপনি চাইলে আপনার গ্রামে কোনো একটা ভালো জায়গাতে বা আপনার বাড়িতে যদি জায়গা থাকে সেখানেও ছোট করে শুরু করতে পারেন ৷ এই ব্যবসায় খরচের চেয়ে লাভের পরিমান অনেক বেশি। আর মাশরুমের বিক্রি নিয়ে আপনাকে ভাবার প্রয়োজন নেই কারণ আগেই বলেছি এর চাহিদা অনেক বেশি । শুধু এখানে নয় বিদেশেও এর চাহিদা বিপুল ।

বিনিয়োগ: এই ব্যবসায় আপনার বিনিয়োগ বা ইনভেস্টমেন্ট প্রায় ১৫ থেকে ২০ হাজার টাকা যদি ছোট করে শুরু করেন, আর বড় করে শুরু করতে গেলে প্রায় ১ লাখ থেকে ৩ লাখ টাকা ।

এগুলো অবশ্যই পড়বেন—

৪.একটি সাইবার ক্যাফে খুলে ব্যবসাঃ

বর্তমান সময় আধুনিকতার সময়। বর্তমান সময়ে যাবতীয় কাজ অনলাইনের মাধ্যমে করা হচ্ছে । এমনকি সরকারি বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা ও প্রকল্পের আবেদন অনলাইনের মাধ্যমে করতে হচ্ছে। শহরাঞ্চলে এইসব কাজের জন্য কোনো সমস্যা হয় না, কারণ শহরে বেশিরভাগ বাড়িতে কম্পিউটার , ইন্টারনেট , প্রিন্টার এইসব থেকে থাকে । আর তাছাড়া অনেক সাইবার ক্যাফে থাকে যেখান থেকে এইসব কাজ খুব সহজে করা যায় ।

কিন্তু গ্রামাঞ্চলে কম্পিউটার ইন্টারনেটের ব্যবস্থা তুলনামুলক ভাবে খুবি কম থাকে। তাই আপনি যদি একটি কম্পিউটার, প্রিন্টার ও ইন্টারনেট কানেকশন নিয়ে একটি ছোটো সাইবার ক্যাফে খুলতে পারেন তাহলে এটি আপনার জন্য একটি লাভজনক ব্যবসা হবে। এই ব্যবসায় লাভের পরিমান অনেক বেশি, আর এই ব্যবসার ভবিষৎ রয়েছে , কারণ আগামী সময়ে হয়তো সব কিছুর জন্য মানুষকে অনলাইনের সাহায্য নিতে হবে।

বিনিয়োগ : এই ব্যবসা শুরু করতে হলে ২৫ থেকে ৩৫ হাজার টাকার মধ্যে হবে। একটি মোটামুটি কনফিগারেশন এর কম্পিউটার ১৫ থেকে ১৮ হাজার টাকার মধ্যে হয়ে যাবে, আর একটি অল ইন ওয়ান প্রিন্টার ১০ থেকে ১২ হাজার টাকা এবং বাকি অন্যান্য খরচ ।

৫.ছোট রেস্তোরা বা তেলেভাজার দোকান ২০২২ঃ

বিলাসবহুল এই শহরে ছোটো বড়ো রেস্তোরা বা রেস্টুরেন্ট এর অভাব নেই। কিন্তু গ্রামাঞ্চলে রেস্তোরা বা খাবার এর দোকান তুলনামূলক ভাবে অনেক কম থাকে। আপনার বাড়ির সামনে যদি জায়গা থাকে সেখানে আপনি খাবার এর দোকান খুলতে পারেন।

আর খাবার এর ব্যবসা যে একটি লাভজনক ব্যবসা সেটা তো আপনারা সবাই জানেন। খুব অল্প বিনিয়োগে আপনি এই ব্যবসা শুরু করতে পারবেন। তবে আপনাকে আপনার খাবার এর গুণমান ও স্বাদ ভালো রাখতে হবে। এইসব দেখে যদি আপনি এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন তাহলে আপনার জন্য এটি সেরা গ্রামে ব্যবসার আইডিয়া হবে ।

বিনিয়োগ: এই ব্যবসা আপনি ৫ থেকে ৮ হাজার টাকা দিয়ে খুব সহজে শুরু করতে পারবেন ৷

৬. মোবাইল মেরামত বা রিপেয়ারিং এর ব্যবসাঃ

গ্রামে লাভজনক ১০ টি ব্যব
গ্রামে কি ব্যবসা করা যায় তা নিয়ে আমাদের অনেকের মাঝেই রয়েছে একটি প্রশ্ন। এমনকি অনেকে আবার এটাও হয়ত খুজছেন টাকা ছাড়া কিভাবে ব্যবসা করা যায়? সেটা নিয়ে না হয় অন্যদিন আলোচনা করব। বন্ধুরা আজকের আলোচনা হলো স্বল্প মূলধন নিয়ে গ্রামে লাভজনক কিছু ব্যবসার ধারনা নিয়ে।

বর্তমানে মোবাইল ফোন ব্যবহার করে না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া যাবে না। মোবাইল ফোন ব্যবহারের দিক থেকে গ্রাম আজ শহরে রুপ নিয়েছে। শহরের সাথে সাথে গ্রামেও আজকাল অধিকাংশ বাড়িতে একটা মোবাইল ফোন আছেই ৷ আবার অনেকের কাছে রয়েছে এন্ড্রয়েড স্মার্টফোন।

মোবাইল ফোন থাকলে সেটা খারাপ তো হবেই, আর গ্রামে কারোর মোবাইল খারাপ হলে তারা শহরে যায় মোবাইল ‘রিপেয়ারিং করতে। আপনি যদি এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন তাহলে আপনার জন্য এটি সেরা গ্রামে ব্যবসার আইডিয়া হবে।

তবে একটা গুরুত্বপূর্ণ জিনিস মাথায় রাখতে হবে আপনি মোবাইল রিপেয়ারিং এর কাজ জানতে হবে । তা না হলে আপনি এই ব্যবসা শুরু করতে পারবেন না ৷

বিনিয়োগ : এই ব্যবসা শুরু করতে ১০- ১২ হাজার টাকার মতো খরচ হবে ৷

৭.টিউটোরিয়াল পরিষেবা ২০২২ঃ

আপনি যদি শিক্ষকতা করতে পছন্দ করেন, তাহলে এটা আপনার জন্য সেরা গ্রামে ব্যবসার আইডিয়া হতে পারে। একটা সময় ছিল যখন গ্রামাঞ্চলে পড়াশোনা করার প্রচলন ছিল না কিন্তু এখন গ্রামের ছেলে মেয়েরা উচ্চ শিক্ষিত হচ্ছে। এমনকি ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার হচ্ছে ও হচ্ছে। গ্রামের ছেলে মেয়েরা পড়াশোনা করতে বা টিউশন পড়ার জন্য অনেক দূর পর্যন্ত যাওয়া আসা করে, শহরে গিয়ে টিউশন করে।

আপনি যদি একটি কোচিং সেন্টার খুলে টিউশন শুরু করতে পারেন, তাহলে সেই ছেলে মেয়েরা আপনার কাছে টিউশন পড়তে আসবে, তাদের আর বাইরে যাওয়ার দরকার পড়বে না। তবে একটা কথা অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে, আপনি যে বিষয় এর উপর টিউশন পড়াবেন সেই বিষয়ের উপর আপনার ভালোরকম জ্ঞান অভিজ্ঞতা থাকতে হবে ৷

আর এই ব্যবসা শুরু করতে হলে আপনি আপনার বাড়ি থেকে শুরু করতে পারেন আর এই ব্যবসার জন্য আপনার কোনোরকম বিনিয়োগ এর প্রয়োজন নেই৷ এই ব্যবসাটি সবচেয়ে সেরা গ্রামে ব্যবসার আইডিয়া এর মধ্যে একটা কারণ এতে কোনো বিনিয়োগের প্রয়োজন নেই।

এগুলো অবশ্যই পড়বেন—

৮.মাছের ব্যবসা ২০২২ঃ

বলা যাই, আমরা মাছে ভাতে বাংগালি। মাছ আমাদের খাবারে পছন্দের তালিকার একটি। বেশির ভাগ মানু্ষ মাছ পছন্দ করাই মাছের চাহিদাও অনেক বেশি। আপনার পুকুর খনন করার মত যদি জাইগা থাকে তাহলে আপনি এই ব্যবসা করতে পারেন। এটি বর্তমানে লাভজনক একটি ব্যবসা। বেশী মূলধনের ও দরকার হয়না। এই ব্যবসা গ্রামে শুরু করবেন তাহলে ইনকাম হবে বেশী।

৯. মুরগির খামার বা ফার্ম ২০২২ঃ

গ্রামে লাভজনক ১০ টি ব্যবসার আইডিয়া ২০২২
গ্রামে কি ব্যবসা করা যায় তা নিয়ে আমাদের অনেকের মাঝেই রয়েছে একটি প্রশ্ন। এমনকি অনেকে আবার এটাও হয়ত খুজছেন টাকা ছাড়া কিভাবে ব্যবসা করা যায়? সেটা নিয়ে না হয় অন্যদিন আলোচনা করব। বন্ধুরা আজকের আলোচনা হলো স্বল্প মূলধন নিয়ে গ্রামে লাভজনক কিছু ব্যবসার ধারনা নিয়ে।

মুরগি খামারের ব্যবসা সম্বন্ধে আশা করি সবাই জানেন এবং শুনেছেন ৷ মুরগি খামারের ব্যবসা বেশিরভাগ গ্রামাঞ্চলে দেখা যায়। এটি একটি লাভজনক গ্রামে ব্যবসার আইডিয়া এর মধ্যে একটা, আর মুরগির মাংসের চাহিদা কতটা বেশি সেটা নিশ্চয় আপনারা সকলে জানেন ৷

একটি পোল্ট্রি মুরগির ফার্ম তৈরী করতে আপনার খুব অল্প জায়গার প্রয়োজন হবে। আপনার যদি নিজের সেরম কোনো জায়গা থাকে তাহলে তো ভালো আর না থাকলে অন্য কারোর জমি ভাড়া হিসেবে নিয়ে আপনি ব্যবসা শুরু করতে পারেন৷ এই ব্যবসার শুরুতে একজন বিক্রেতার সাথে চুক্তি করতে হবে, যে আপনাকে মুরগি ছানা, প্রয়োজনীয়খাবার এইসব সরবরাহ করবে এবং কিছু নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত আপনাকে মুরগি গুলোকে প্রতিপালন করতে হবে। পরে যখন মুরগি গুলো বড়ো হয়ে উঠবে, তখন আপনার কাছে সেই বিক্রেতা মুরগির ওজন হিসেবে কিনে নেবে।

আপনি যদি ব্যবসার শুরুতে নিজে সবকিছু করতে চান, অর্থাৎ মুরগি চান , তাদের খাবার কেনা থেকে শুরু করে তাদের প্রতিপালন করে বাজারে বিক্রি করা। তাহলে আপনি ব্যবসাতে ক্ষতিগ্রস্থ হতে পারেন, কারণ ব্যবসার শুরুতে আপনার কোনো যোগাযোগ নেই।

তাই ব্যবসার শুরুতে এতোটা বেশি ঝুঁকি বা রিস্ক নেওয়া উচিত নয়। তাই আপনি ব্যবসার শুরুতে যদি চুক্তি ভিত্তিতে কাজ করেন তাহলে ক্ষতির পরিমান অনেকটাই কমে যাবে এবং ঝুঁকি ও কম থাকবে ৷

১০.পোশাকের দোকান ২০২২ঃ

পোশাক আমাদের সকলের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ পন্য। তাই আপনি যদি আপনার গ্রামে একটি কাপড়ের দোকান খুলেন যা মানুষকে আধুনিক এবং ভাল কাপড় সরবরাহ করে তবে এটি গ্রামের ব্যবসার আইডিয়ায় সফল হবে। এর জন্য আপনাকে পোশাক সরবরাহকারীদের সন্ধান করতে হবে যারা কমিশনের উপর ভিত্তি করে বিভিন্ন ধরনের কাপড় আনতে পারে। যেহেতু গ্রামের মানুষ ঘন ঘন শহরে ভ্রমণ করে না তাই তারা নিকটস্থ কাপড়ের দোকান থেকে কিনবে।

আমার শেষ কথা…

এই ছিল আজকে ব্যবসার আইডিয়া ২০২২, গ্রামে লাভজনক ১০ টি ব্যবসার আইডিয়া ২০২২ নিয়ে লেখা। আশা করি এই আইডিয়াগুলো আপনাদের ভাল লেগেছে। আপনাদের যদি কোন রকম প্রশ্ন থাকে তাহলে কমেন্ট করে অবশ্যই জানাবেন।

Businesses BDhttps://www.businesslinear.com/
Lorem ipsum is a placeholder text commonly used to demonstrate the visual form of a document or a typeface without relying on meaningful content

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest Articles