Friday, May 24, 2024

গুগল অ্যাডসেন্স কি? গুগল অ্যাডসেন্স থেকে কিভাবে আয় করবেন?

ওয়েবসাইট ট্রাফিক মনেটাইজ করার অনেক উপায় আছে। আর সেগুলোর বেশিরভাগই ওয়েবসাইট ভিজিটরদের জন্যে থার্ড-পার্টি আ্যাডভার্টাইজিং প্রোডাক্টস্‌ কিংবা সার্ভিস। আবার, অনলাইনে অনেক আ্যাড প্রোগ্রাম রয়েছে যেগুলো ওয়েবসাইট মালিকদের আয় করার সুযোগ করে দিচ্ছে। আর এগুলোর মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং সহজ প্রোপ্রামটি হচ্ছে গুগল অ্যাডসেন্স

গুগলের এই আ্যাডভার্টাইজিং প্রোগ্রামটি ২০০৩ সালের মাঝামাঝি সময়ে চালু হয়। আর এটিই এখন পর্যন্ত ইন্টারনেটে থাকা পাবলিশারদের জন্যে সবচেয়ে পপুলার প্রোগ্রাম। যা ওয়েব মাস্টার এবং ওয়েবসাইট মালিকদের জন্যে অনলাইনে আয়ের অনেক ভাল একটি সুযোগ। প্রতি বছর গুগল প্রায় ১০ বিলিয়ন ডলার বা ৮৪ হাজার কোটি টাকা পাবলিশার তথা ওয়েবসাইট মালিকদেরকে পেইড করে থাকেন। এছাড়াও আপনি ইউটিউব থেকেই প্রতি মাসে লাখ টাকা আয় করতে পারবেন। আপনারা যদি জানতে চান গুগল আ্যাডসেন্স কি? গুগল অ্যাডসেন্স থেকে কিভাবে আয় করবেন? তাহলে আমাদের এই আর্টিকেলটি আপনার জন্য।

গুগল অ্যাডসেন্স কি? (What is Google AdSense)

আশা করি ভূমিকা পড়েই আপনি ইতিমধ্যে বুঝে ফেলেছেন যে, আ্যাডসেন্স কি। আমরা আরও একটু ভালভাবে বুঝি, গুগল এডসেন্স হলো গুগলের একটি অ্যাডভার্টাইজমেন্ট পাবলিশিং প্রোগ্রাম। ধরুন, আপনার যদি একটি ওয়েবসাইট বা ইউটিউব চ্যানেল থাকে তাহলে আপনি গুগল এডসেন্সের মাধ্যমে গুগল এড দেখে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।  আপনারা ইউটিউবের ভিডিওতে বা ব্লগে বিভিন্ন রকমের অ্যাড দেখতে পান এই অ্যাডগুলো কিন্তু গুগল এডসেন্সের মাধ্যমে দেওয়া হয়। ওই অ্যাড এ যদি ক্লিক পড়ে তাহলে ওদের একাউন্টে টাকা জমা হয়। কিছু টাকা গুগোল কেটে নেয় কিছু টাকা যেখানে অ্যাড দেখায় তাদের কে দেয়।  অর্থাৎ বলতে পারেন গুগল এডসেন্স হলো গুগলের একটি সার্ভিস।

আযাডভার্টাইজারদের কাছ থেকে গুগল পার ক্লিক এ পার ইমপ্রেশনের উপর ভিত্তি করে চার্জ নিয়ে থাকে। আর এই চার্জ থেকে যে আর্নিং আসে গুগল তার ২২ পার্সেন্ট থেকে ৩২ পার্সেন্ট পর্যন্ত দেয়। বাকীটা পাবলিশার বা ওয়েবসাইট ওনারদের মধ্যে ভাগ করে দেয়। এতে করে, গুগলের প্রতি বছরের আয় দাঁড়ায় প্রায় ১৩. ৬ বিলিয়ন ডলার।

বর্তমানে আপনি এডসেন্স এর মাধ্যম অনলাইন থেকে টাকা আয় করতে পারবেন। কিন্তু, তার জন্য আগে আপনার একটি ব্লগ, ওয়েবসাইট, App বা Youtube চ্যানেল থাকতে হবে। এই মাধ্যম গুলি ব্যবহার করে আপনি এডসেন্সের জন্য Apply করতে পারবেন। এবং এডসেন্সের বিজ্ঞাপন দেখিয়ে টাকা আয় করতে পারবেন৷

গুগল অ্যাডসেন্স কিভাবে কাজ করে?(How does Google AdSense work?)

গুগল আ্যাডসেন্সের এই পুরো প্রক্রিয়াটি অত্যন্ত সাধারণ। আপনি একটি আ্যাডসেন্স আ্যাকাউন্ট ক্রিয়েট করবেন, যা আবেদনের মাধ্যমে অনুমোদন বা আ্যাপ্রুভ করে নিতে হয়। এরপর, আপনার ওয়েবসাইটের বিভিন্ন পেজে একটি ছোট আ্যাড কোড বসাবেন। এটাই হল আপনার শুরুর কাজ বাকীটা গুগলের কাজ।

গুগল অটোমেটিক্যাল্লি আপনার ওয়েবসাইটে আযাড ডিসপ্লে শুরু করবে। ফলে ওয়েবসাইটের ভিজিটররা যখন প্রদর্শিত আ্যাডে ক্লিক করা শুরু করবে, তখন আপনার ইনকাম জেনারেট হওয়া শুরু হবে। আর ইনকামটা ক্যালকুলেট হবে কস্ট-পার-ক্লিক অনুসারে। আপনার সঙ্গে গুগলের লেনদেন হবে রেভিনিউ শেয়ারিং বেসিসে। তার মানে বুঝতেই পারছেন, আপনার ইনকাম বা রেভিনিউ নির্ভর করছে ভিজিটরদের ক্লিকের উপর।

  • গুগলের সঙ্গে কখনোই প্রতারণার আশ্রয় নেয়ার কথা চিন্তা করবেন না। অর্থাৎ, কৃত্রিমভাবে আ্যাডে ক্লিক ফেলার কথা ভাববেন না। কারণ, গুগলের মেশিন আ্যালগোরিদম আপনার থেকে বেশি স্মার্ট।
  • এমন কোনও উপায় অবলম্বণ করবেন না, যাতে ভিজিটররা আপনার আ্যাডে ক্লিক করতে বাধ্য হয়।
  • কোনও ব্যানার বা টেক্সট্‌ প্রদর্শন করে ভিজিটরদেরকে আ্যাডে ক্লিক করতে উৎসাহিত করবেন না।
  • মনে রাখবেন, গুগলের একেবারে একিউরেট এবং কমপ্লিকেটেড একটা সিস্টেম রয়েছে। যা আপনার সব ধরণের ফ্রড সিস্টেম ধরে ফেলতে পারে। কাজেই, যা কিছু করবেন তার সবকিছুই যেন ন্যাচারাল হয়। নতুবা, আপনার আ্যাকাউন্ট ব্যানড্‌ হয়ে যাবে।

আরো পড়ুন:

অ্যাডসেন্স এর জন্য কি কি লাগবে?

আমরা এডসেন্স সম্পর্কে জানলাম। এখন জানতে হবে একটি এডসেন্স একাউন্টের জন্য কী কী লাগবে। আপনি গুগল এডসেন্স থেকে টাকা ইনকাম করতে চাইলে প্রথমত আপনার একটি ব্লগ বা ওয়েবসাইট লাগবে। ব্লগ বলতে বুঝাতে চাচ্ছি একটি ইনফরমেটিভ ওয়েবসাইট। যেটাতে আপনি ইনফর্মেশন কালেক্ট করে আপডেট করবেন এবং অডিয়েন্স রা আপনার ওয়েবসাইটে সেই ইনফরমেশন গুলো খুঁজেতে আসবে। যখন তথ্য খুঁজতে এসে এড এর উপর ক্লিক করবে তখনই আপনি টাকা পাবেন ।

সুতরাং আ্যাডসেন্স এর জন্য একটি ওয়েবসাইট গুরুত্বপূর্ণ। দ্বিতীয়তঃ একটি ইমেইল এড্রেস৷ তাছাড়া এই মুহূর্তে আর কোন কিছুর প্রয়োজন নেই৷

অ্যাডসেন্স জন্য কিভাবে অ্যাপ্লাই করবো?

আমি আগে বলেছি, এডসেন্সের থেকে টাকা আয় করার জন্য আপনার একটি ব্লগ, ওয়েবসাইট বা ইউটিউব চ্যালেনের দরকার হবে । কারণ, এডসেন্সের বিজ্ঞাপন আপনি তখন দেখতে পারবেন যখন আপনার কাছে একটি ব্লগ , ওয়েবসাইট অ্যাপ বা ইউটিউব চ্যানেল থাকবে।

এইগুলির মধ্যে থেকে একটাও যদি আপনার কাছে থাকে তাহলে গুগল এডসেন্স এর ওয়েবসাইট গিয়ে ফরম ফিলাপ করবেন। ফরম ফিলাপ করে আপনি একটি এডসেন্স একাউন্টের জন্য আপ্লাই করতে পারবেন। আপনি যদি ব্লগের বা ইউটিউবের চ্যানেল ব্যবহার করেন। তাহলে, আপনি নিজের ব্লগার বা ইউটিউব চ্যানেলের অ্যাকাউন্ট থেকে এডসেন্স জন্য অ্যাপ্লাই করতে পারবেন।

এডসেন্সর জন্য Apply করার সাথে সাথে আপনার একাউন্ট, ব্লগ বা ওয়েবসাইট গুগল দ্বারা গ্রহন নাও হবে পারে। মানে, একবারে গুগল আপনার এডসেন্স একা্উন্ট চালু নাও করতে পারেন। যার ফলে আপনাকে একবারের থেকে বেশি এডসেন্সের জন্য আপলাই করা লাগতে পারে। মনে রাখবেন, একেবারেই এডসেন্স একাউন্ট চালু করার জন্য আপনি গুগল এডসেন্সের program policies, শর্ত (terms & conditions) গুলি মেনে তারপর apply করবেন।

তবে এর বাইরে আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগে এডসেন্সের জন্য নির্বাচিত হবার যোগ্যতা আছে কিনা তা আপনার অবশ্যই জেনে নেওয়া উচিত। এতে, এডসেন্স আপনার একাউন্ট একেবারেই চালু করে দিতে পারে। আর, আপনার একা্উন্ট গ্রহন বা রিজেক্ট যাই হোক তা কেন আপনাকে গুগল ইমেলের মাধ্যমে জানিয়ে দিবে।

মনে রাখবেন, কেবল গুগল দ্বারা আপনার একাউন্ট গ্রহন হওয়ার পর আপনি নিজের ব্লগ বা ওয়েবসাইট বিজ্ঞাপন লাগিয়ে টাকা আয় করতে পারবেন।

গুগল অ্যাডসেন্স কিভাবে টাকা দেয় ?

যখন আমরা নিজের ব্লগ, ওয়েবসাইট, App বা ইউটিউব ভিডিওতে এডসেন্সের বিজ্ঞাপন লাগাই বা দেখায় তখন তাতে বিভিন্ন রকমের বিজ্ঞাপন দেখানো হয়। আর, যখন আমাদের ব্লগ বা ভিডিওতে দর্শক (visitors) আসেন এবং তারা যখন সেই বিজ্ঞাপন গুলি দেখে এবং তাতে ক্লিক করে তখন গুগল এডসেন্স সেই view বা Click এর জন্য আপনাকে কিছু টাকা দেয়।  

আর, এরকম করে বিজ্ঞাপনে view এবং ক্লিক হোতে হোতে যখন আপনার Adsense একাউন্টে মোট ১০০$ (ডলার) হয়ে যায়। তখন গুগল আপনার ব্যাঙ্ক একাউন্টে সেই টাকা পাঠিয়ে দেয়।

আরও পড়তে পারেনঃ

ব্লগের জন্য অ্যাডসেন্স এর এপ্রোভাল কিভাবে পাবেন:

কিভাবে গুগোল আ্যাডসেন্সে আ্যাপ্রভাল পাবেন? গুগল আ্যাডসেন্স আ্যাপ্রুভাল পাওয়ার জন্য প্রথমত আমাদের একটি দৃষ্টিনন্দন এবং ইনফরমেটিভ একটি ওয়েবসাইট লাগবে। যেটা আগেই বলেছি আপনার ওয়েবসাইট যদি তথ্যবহুল না হয় তাহলে সেটা কেউই পছন্দ করবে না। আর যখনই আপনার একটা ওয়েবসাইট দৃষ্টিনন্দন বা ইনফরমেটিভ হবে তখন ভিজিটররা আপনার ওয়েবসাইটে তাদের তথ্য খুঁজতে আসবে। আর এরকম একটি ওয়েবসাইট গুগলের কাছেও পছন্দনীয়। গুগল যখন আপনার ওয়েবসাইট পছন্দ করবে তখন এডসেন্স ব্যবহার করার জন্য অনুমতি দেবে।

গুগোল অ্যাডসেন্স থেকে কিভাবে টাকা আয় করবেন ?

গুগল এডসেন্সের থেকে অনলাইন টাকা আয় করার জন্য আপনার একটি ব্লগ বা You tube চ্যানেল বানাতে হবে৷ ব্লগ বানিয়ে তাতে আপনার নিয়মিত ভাবে আর্টিকেল লিখতে হবে। এবং, ইউটিউব চ্যানেল বানালে আপনার তাতে ভিডিও বানিয়ে আপলোড করতে হবে। যখন আপনার ব্লগ বা You tube চ্যানেলে Visitors বা দর্শক আশা শুরু হবে তখন আপনি গুগল এডসেন্সের জন্য এপলাই করতে পারবেন। এডসেন্স যদি আপনার একাউন্ট চালু করে দেয় তাহলে আপনি ‘নিজের ব্লগ বা ভিডিওতে বিজ্ঞাপন দেখাতে পারবেন। 

যতবার আপনার ব্লগ বা ভিডিও তে দেয়া বিজ্ঞাপন লোকেরা দেখবে বা তাতে ক্লিক করবে ততবার আপনাকে এডসেন্সের তরফ থেকে টাকা দেয়া হবে। এবং,যখন আপনার একাউন্টে ১০০ ডলার হয়ে যাবে তখন আপনার ব্যাঙ্ক একাউন্টে সেই টাকা পাঠিয়ে দেয়া হবে।

আমার শেষ কথা,

আমি আশা করি গুগল এডসেন্স কি? কিভাবে ব্যবহার করতে হয় এবং গুগল এডসেন্সের থেকে কিভাবে আয় করতে হই বুঝতে পেরেছেন। আপনাদের যদি কোন রকম প্রশ্ন থাকে তাহলে কমেন্ট করে অবশ্যই জানাবেন।

Businesses BDhttps://www.businesslinear.com/
Lorem ipsum is a placeholder text commonly used to demonstrate the visual form of a document or a typeface without relying on meaningful content

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest Articles